Breaking News

এক সঙ্গে কাজ করবে বিডা, এটুআই ও বামা

লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং সেক্টরে গবেষণা ও উন্নয়নের লক্ষ্যে রাজধানীর প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা), এটুআই এবং বাংলাদেশ অটোমোবাইলস অ্যাসেম্বর্লাস অ্যান্ড ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বামা) মধ্যে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে।
বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের সেক্রেটারি ড. আবদুল হামিদ, এটুআই-এর পলিসি অ্যাডভাইজর আনীর চৌধুরী এবং বামার সিনিয়র সহ-সভাপতি তাসকিন আহমেদ স্ব-স্ব প্রতিষ্ঠানের পক্ষে সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন।
সমঝোতা স্মারকের আওতায় লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং সেক্টরে সংযোগ স্থাপন, সাব সেক্টরগুলোতে নির্দিষ্ট পণ্য শনাক্তকরণ, বিভিন্ন উদ্যোগ ও সফলতার বিষয়গুলো পর্যালোচনা, বাজার চাহিদা বিশ্লেষণ, বর্তমান সেক্টরের সক্ষমতা বিশ্লেষণ, বিনিয়োগ ক্ষেত্র নির্দিষ্টকরণ এবং এ খাতের বিকাশে প্রাসঙ্গিক অঞ্চল চিহ্নিত করার কার্যক্রম গ্রহণ করা হবে।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০২০ সালকে লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং বছর হিসেবে ঘোষণা করেছেন এবং এর আওতায় সাইকেল, মোটরসাইকেল, অটোমোবাইল, অটো পার্টস, বৈদ্যুতিক ও ইলেকট্রনিক আইটেম, সোলার ফটো-ভল্টিং মডিউল, ব্যাটারি এবং খেলনা উৎপাদন করার পরামর্শ দেন। এই খাতের বিভিন্ন পণ্য দেশীয় প্রযুক্তিতে উৎপাদন ও রপ্তানি করে আরো বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের লক্ষ্যে বিশেষ মনোযোগ দেয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশনা দেন। এরই ধারাবাহিকতায়, এই খাতে বিডাএর তত্ত্বাবধানে এবং এটুআইয়ের ইনোভেশন ল্যাবের (আইল্যাব) কারিগরি সহযোগিতায় বামা যৌথ সমন্বয়ের মাধ্যমে লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে কাজ শুরু করার উদ্যোগ নেয়া হয়।
উল্লেখ্য, বর্তমান সরকারের ঘোষিত রূপকল্প ২০২১ বাস্তবায়নে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের আওতাধীন এবং মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ ও ইউএনডিপি বাংলাদেশের সহযোগিতায় পরিচালিত এটুআই বিভিন্ন নাগরিক সেবা সহজীকরণ ও বিদ্যমান নাগরিক সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যে বিভিন্ন কার্যক্রম গ্রহণ করেছে।
ইতোমধ্যে এটুআই ইনোভেশন ল্যাবের মাধ্যমে মোট ২৪৭টি প্রকল্পকে অনুদান দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে এটুআই ইনোভেশন ল্যাব সহজে, কম খরচে ও কম সময়ে নাগরিক-সেবা প্রদানের লক্ষ্যে দেশীয় উদ্ভাবকগণের সহায়তায় বিভিন্ন ডিভাইস উদ্ভাবন করেছে। দেশব্যাপী উদ্ভাবনী চর্চার ধারাবাহিকতা বজায়, ইনোভেশন ইকোসিস্টেম তৈরি, উদ্ভাবনে স্বীকৃতি প্রদান ও তরুণদের উদ্ভাবনী শক্তির বিকাশের লক্ষ্যে এটুআই এবং জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘরের যৌথ চেষ্টায় এটুআই ইনোভেশন ল্যাব (iLab) প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। এর আওতায় উদ্ভাবিত নয়টি অ্যাম্বুলেন্স দিয়ে কক্সবাজার জেলার উখিয়া উপজেলার রোহিঙ্গা ক্যাম্পের রোগীদের আনা-নেয়ার জন্য জাতিসংঘের অঙ্গসংগঠন ইউএনএফপিএ-এর প্রকল্প বাস্তবায়নকারী সহযোগী সংস্থা আরটিএমআইয়ের কাছে সরবরাহ করেছে। বর্তমানে রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে জেলা ও উপজেলার বিভিন্ন হাসপাতালে রোগী আনা-নেয়ার জন্য উক্ত অ্যাম্বুলেন্স ব্যবহৃত হচ্ছে।

No comments