Breaking News

পীরগঞ্জ উপজেলার সকল জনপ্রতিনিধির নিকট খোলা চিঠি

প্রতি স্থানীয় সরকার (জনগণের ভোটে নির্বাচিত প্রতিনিধি) এমপি/উপজেলা চেয়ারম্যান/ভাইচ চেয়ারম্যান/ পৌর মেয়র/কাউন্সিলর/ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বার মহোদয়। পীরগঞ্জ-রংপুর। বিষয়ঃ প্রান্তিক পর্যায়ের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের জন্য অনুদান এবং সুদমুক্ত ঋণ প্রদান প্রসঙ্গে। জনাব শুভেচ্ছা জানবেন, সারা বিশ্বের করোনা পরিস্থিতি বাংলাদেশেও ব্যাপক প্রভাব বিস্তার করেছে। করোনার প্রাদুর্ভাব আমাদের পীরগঞ্জে বিস্তার ঘটাতে না পারলেও করোনা প্রতিরোধে সরকারি ঘোষণা বাস্তবায়নে স্বাস্থ্য বিধি,গণজমায়েত এড়াতে সামাজিক দূরত্ব বিধান মানাসহ উপজেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির সকল সিদ্ধান্ত মেনে প্রান্তিক পর্যায়ের সকল ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী তথা ছোট বড় হোটেল,চায়ের দোকান,পানের দোকান,ফুটপাতে ছোট ছোট দোকান প্রায় ১০/১৫ দিন যাবৎ বন্ধ রাখায় উপার্জনহীন হয়ে পড়েছে। তার উপর আছে কিস্তির চাপ। তাদের অধিকাংশের পুঁজি এক থেকে পাঁচ হাজার টাকা। দৈনিক আয় সর্বোচ্চ দুই থেকে তিনশ টাকা। যা দিয়ে দিন এনে দিন খাওয়ার মত টেনে হেঁচড়ে সংসার চলতো। উপজেলার বিভিন্ন অঞ্চলে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে তাদের অধিকাংশই মানবেতর জীবন যাপন করছে। এখন পর্যন্ত তারা কোন ত্রাণ পায়নি। পায়নি কোন দান। আপনি/আপনারা আমাদের ভোটে নির্বাচিত প্রতিনিধি। আমাদের দুঃসময়ে আপনি/আপনারাই আমাদের ভরসা। তাই বিনয়ের সাথে বিনীতি অনুরোধ এখনই তাদের পাশে দাঁড়ান। তাদের জন্য যেসব পদক্ষেপ গ্রহণ করা জরুরি বলে মনে করি- ১। দ্রæততার সাথে তাদের বাড়িতে সরকারি ত্রাণ পৌছানোর ব্যবস্থা করুন। ২। তাদের চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করুন। ৩। তারা যেন বাড়িতেই থাকে তা নিশ্চিত করুন। ৪। সম্পূর্ণ সুদ মুক্ত ঋণ দিয়ে তাদের আর্থিকভাবে সহযোগিতা করুন। ৫। তাদের সাথে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রক্ষা করুন। পরিশেষে আসুন সবাই মিলে করোনা প্রতিরোধে নিজ নিজ দায়িত্ব পালন করি। শুভেচ্ছান্তে সেবু মোস্তাফিজ পীরগঞ্জ-প্রতিনিধি দৈনিক যায়যায়দিন পীরগঞ্জ-রংপুর।

No comments