Breaking News

রাষ্ট্র প্রধানের কাছে সংবাদকর্মী সেবু মোস্তাফিজের খোলা দরখাস্ত।

প্রতি মাননীয় রাষ্ট্র প্রধান গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার বিষয়ঃ করোনার উদ্ভুত পরিস্থিতিতে বর্তমানে জরুরি চাহিদা প্রসঙ্গে। হে মাননীয় রাষ্ট্র প্রধান আমি রংপুরের পীরগঞ্জের একজন অতি সাধারণ নাগরিক। আমার শুভেচ্ছা জানবেন। করোনা উদ্ভুত পরিস্থিতে আমার ক্ষুদ্র জ্ঞানে জনস্বার্থে কিছু চাহিদা জরুরি বলে বিবেচিত হয়েছে। তা আপনার সদয় বিবেচনার জন্য উপস্থাপন করলাম। সর্ব প্রথম দেশে জরুরি ভিত্ত্বিতে জরুরি অবস্থা জারি করে সেনাবাহিনীর নেতৃত্বে স্থানীয় প্রশাসনের সমন্বয় ঘটিয়ে পরিস্থিতির শিকার অহসহায় দেশবাসীর জান ও মালের সার্বিক নিরাপত্ত্বা নিশ্চিত করাসহ নিম্নোক্ত বিষয়ে জরুরি ভিত্ত্বিতে ব্যবস্থা গ্রহণ করা। ১। একদম প্রান্তিক পর্যায় থেকে খানা তালিকা অনুয়ায়ী দিন এনে দিন খায়,নিম্ন মধ্যবিত্ত, মধ্যবিত্ত,উচ্চ মধ্যবিত্ত এবং উচ্চবিত্তদের তালিকা প্রনয়ণ করে চাহিদার ভিত্তিতে খাদ্য ও আর্থিক নিরাপত্ত্বা নিশ্চিত করা। ২। শিশু এবং বয়স্কদের তালিকা করে শিশু খাদ্যসহ চিকিৎসা এবং বয়স্কদের সার্বিক সহযোগিতা নিশ্চিত করা। ৩। কৃষি উৎপাদন অব্যাহত রাখতে কৃষকদের সার,বীজসহ কৃষি উপকরণ সরবরাহ,কৃষি ভর্তুকি এবং নগদ আর্থিক সহযোগিতা ও সম্পূর্ণ সুদ মুক্ত ঋণ প্রদান করা। ৪। প্রতিটি উপজেলায় ছুটিতে বন্ধ থাকা স্কুল কলেজে অস্থায়ী স্বাস্থ্য ক্যাম্প প্রস্তুত করে গ্রামগঞ্জে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা সনদধারী পল্লী চিকিৎসকদের অস্থায়ী নিয়োগ দিয়ে স্বল্প মেয়াদি প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করে উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের সাথে সমন্বয় সাপেক্ষে বিশাল চিকিৎসাসেবী বাহিনী প্রস্তুত করা এবং করোনা সংক্রামণ এড়াতে কালক্ষেপণ না করে ইউনিয়ন পর্যায়ে দেশ এবং বিদেশ থেকে আগত ঝু্ঁকিপূর্ণদের বাধ্যতামূলক প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন নিশ্চিত করা। ৫। গবাদিপশু সংরক্ষণ এবং চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করা। ৬। সকল স্থরের ছোট-বড়-মাঝারী ব্যবসায়ীদের তালিকা প্রনয়ণ করে ব্যবসায় ভর্তুকি ও সল্প সুদে ঋণের ব্যবস্থা করা। ৭। গৃহবন্দি কর্মঠ মানুষদের উৎসাহিত করে এখন থেকেই হস্ত ও কুঠির শিল্প সামগ্রী উৎপাদন অব্যাহত রাখতে সরকারিভাবে আগাম ক্রয় করে প্রয়োজনীয় দ্রব্য সামগ্রীর মজুদ করা। ৮। গ্রামেগঞ্জের বেকার যুবকদের উৎসাহিত করে বাড়িতে বাড়িতে মৎস্য খামার ও গবাদি পশুর খামার তৈরি করতে বেকারদের আর্থিক সহযোগিতা করা। ৯। উঠোন ভিত্ত্বিক কৃষি ব্যবস্থার আওতায় বাড়ি ঘরের আনাচে কানাচে এবং ছাদে সবজি বাগান তৈরিতে গৃহবন্দি মানুষকে সার-বীজসহ যাবতীয় উপকরণ বিনামূল্যে সরবরাহ করা। ১০। গণজমায়েত এড়াতে হাট-বাজার গুলো স্থানান্তরিতে করে পাড়া মহল্লার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে অস্থায়ী মিনি বাজার স্থাপন করে গৃহবন্দি মানুষের হাতের নাগালে বাজার ব্যবস্থা করা,ভ্রাম্যমাণ বাজার ব্যবস্থা করা এবং স্থানীয় প্রশাসনের মাধ্যমে সার্ভিজ চার্জ ছাড়াই নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রীর হোম ডেলিভারি সার্ভিজ চালু করা। ১১। উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের স্বাস্থ্যকর্মীদের মাধ্যমে সার্ভিজ চার্জ ছাড়াই প্রয়োজনীয় ঔষুধ গৃহবন্দি মানুষের জন্য হোম ডেলিভারি সার্ভিজ চালু করা এবং নিম্ন আয়ের মানুষের জন্য প্রয়োজনীয় ঔষুধ বিনামূল্যে সরবরাহ করা। ১২। প্রাকৃতিক জীব বৈচিত্র রক্ষায় পশু-পাখির সুরক্ষার ব্যবস্থা করা। ১৩। সকল স্বাস্থ্য বিধি,সামাজিক দূরত্ব বজায় বিধি বিষয়ে সরকারি প্রচার-প্রচারণার বিষয়ে স্থানীয় সেচ্ছাসেবী এবং সেচ্ছাসেবী সংগঠন সমূহকে উৎসাহিত করা। ১৪। পাড়া মহল্লায় দূর্যোগকালী আর্থিক ফান্ড এবং খাদ্য ভান্ডার তৈরি করতে সেচ্ছাসেবী সংগঠন সমূহকে সরকারি অনুমোদন সাপক্ষে কাজে লাগানো এবং বাড়িতে বাড়িতে মুঠের চাল,ডাল, পিয়াজ, মরিচ,তেল,লবন সংরক্ষণ করে দূর্যোগকালীন খাদ্য ভাণ্ডার প্রস্তুত করতে উৎসাহিত করা। ১৫। সরকারের পাশাপাশি পরিস্থিতির শিকার অসহায় মানুষের পাশে স্থানীয়ভাবে যেসব মানবতাবাদী ব্যক্তি ও সেচ্ছাসেবী সংগঠন এগিয়ে এসেছে তাদের মানবতার ফেরিওয়ালা হিসেবে আখ্যায়িত করে উৎসাহিত করা। হে মাননীয় রাষ্ট্র প্রধান আমার এসব ক্ষুদ্র চিন্তার একটিও যদি বাস্তবায়িত হয়ে জনস্বার্থে কাজে লাগে তাহলে জন মানুষের জন্য উৎসর্গিত এ জীবন ধন্য হবে। শুভেচ্ছান্তে সেবু মোস্তাফিজ এমএসএস(রাষ্ট্র বিজ্ঞান)ঢাবি বিএ(অনার্স-রাষ্ট্র বিজ্ঞান)কলকাতা বিশ্ব বিদ্যালয় পীরগঞ্জ প্রতিনিধি দৈনিক যায়যায়দিন ও প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক সামাজিক উদ্যোগ(সউ) পীরগঞ্জ-রংপুর shabu.mostafiz@gmail.com

No comments