Breaking News

শ্রেষ্ঠ উদ্যোক্তার ব্রেন টিউমার, মানবতার টানে এগিয়ে আসুন

নিরবে নিস্তব্ধ হয়ে বিছানায় মৃত্যু সাথে পাঞ্জা লড়ছেন আমোদের সবার পরিচিত মুখ ঠাকুরগাঁও জেলার শ্রেষ্ঠ উদ্যোক্তা পীরগঞ্জ উপজেলার ভোমরাদহ ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তা  মোঃ মোরসেদ হোসেন রানা ভাই।
একটি কথা না বললেই নয় যে মানুষটি সব সময় চেয়ারম্যান সাহেবের পাশে ছিলেন সব কাজ করে দিতেন তখন খুবই প্রয়োজন ছিল রানা ভাইয়ের। আজ যখন মুত্যৃর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন সেই মহুর্তে এই মানুষটির একটিবার খবরও নেওয়ার প্রয়োজন মনে করেন নি এমন কি একটু সহযোগীতা পায়নি তার পরিবার।
বর্তমানে রানা ভাই চোখে দেখেন না কানেও শুনেন না এবং খাওয়া দাওয়া ও বন্ধ হয়ে গেছে। রানা ভাইয়ের পরিবারে বয়স্ক মা, স্ত্রী, একটি কন্যা সন্তান, একটি ছোট অবুঝ শিশু সন্তান খুবই কষ্টের মধ্যে দিন যাপন করছে। রানা ভাইয়ের দুটি ফুট ফুটে সন্তানের দিকে তাকালে নিজের অজান্তেই চোখের পানি চলে আসে। যে পরিবারটির ভরন পোষন খাওয়া দাওয়া সব কিছুর একমাত্র উপর্জন কারী ব্যক্তি ছিলেন রানা ভাই। পরিবারটি চলার মত কোন ইনকামের রাস্তা নেই, নেই কোন সম্বল। যা ছিল সবটুকু তার নিজের চিকিৎস্যার পেছনে ব্যয় করেছেন তার পরিবার। আজ সব কিছু শেষ করে পরিবারটি একেবারে নিস্বঃ হয়ে গেছে।
রানা ভাইয়ের মেয়েটি আগামী ২০২১ সালের এস,এস,সি পরীক্ষাথী। অর্থের অভাবে মেয়েটির লেখা পড়াও বন্ধ। পরিবারটি কবে যে, একটু ভালো তরকারী দিয়ে পেট ভরে শান্তিমত খেয়েছে তাও বলতে পারবেনা।
রানা ভাইয়ের পরিবারটির এই দুঃসময়ে আমরা যদি পাশে দাড়াই, তাহলে মেয়েটির লেখা পড়াটাও হবে আর পরিবারটিও কিছুটা হলেও উপকৃত হবে।
দেশ সেরা উদ্যোক্তা Abdul Mannan Rana ভাই, মোঃ সোলায়মান মুন্সী সহ কয়জন মিলে রানা ভাইয়ের পরিবারের পাশে দাড়ানোর জন্য একটি ফেসবুক গ্রুপ খুলেছেন, যার নাম দেওয়া হয়েছে “রানা ভাই ফান ক্লাব”। গ্রুপে রানা ভাইয়ের বিকাশ, নগদ, রকেট নাম্বার দেওয়া আছে যার যার সামথ্য মত সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দেওয়ার জন্য অনুরোধ করছি। আজ হয়তো রানা ভাইয়ের করুন অবস্থা কাল আপনার আমারও হতে পারে। মানুষ মানুষের জন্য তাই আমরা রানা ভাইয়ের পরিবারটির পাশে দাড়াই একটু খোজ খবর রাখি। রানা ভাইয়ের ছেলে মেয়েদের এখন আমাদের নিজের ছেলে মেয়ে মনে করে সবাই পরিবারটির পাশে থাকার জন্য অনুরোধ করছি।
সব শেষে রানা ভাইয়ের পরিবারের পক্ষ থেকে সবার নিকট রানা ভাইয়ের জন্য দোয়া চাচ্ছি। আর রানা ভাইয়ের কথায়, আচার আচরনে কারো মনে সামান্যতম কষ্ট দিয়ে থাকে তাহলে রানা ভাইকে ক্ষমা করে দিবেন।

রানা ভাইয়ের পরিবারের খোজ খবর নিতে এবং সহযোগীতার জন্য নিম্নের নাম্বারটিতে যোগাযোগ এবং সহযোগিতা করার অনুরোধ করছি। এই নাম্বারটি তার স্ত্রীর। এই নাম্বারটিতে বিকাশ, রকেট ও নগদ একাউন্ট করা আছে। 01768-882501

No comments