Breaking News

মর্যাদাপূর্ণ ‘United Nations Public Service Award-2020’ অর্জন

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর যোগ্য নেতৃত্বে ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির আরো একটি বড় অর্জন জাতিসংঘ কর্তৃক ভূমি মন্ত্রণালয়কে 'United Nations Public Service Award-2020' প্রদান। দেশব্যাপি ই-মিউটেশন বাস্তবায়নের স্বীকৃতি হিসেবে এ পুরস্কার দেওয়া হয়েছে। ভূমি মন্ত্রণালয় 'ই-মিউটেশন' কার্যক্রমের জন্য ‘Developing Transparent and Accountable Public Institutions’ ক্যাটাগরিতে 'United Nations Public Service Award-2020' অর্জন করেছে। প্রতিবছর ২৩ জুন, যথাযোগ্য মর্যাদা ও আনুষ্ঠানিকতার সঙ্গে জাতিসংঘ দিবসটি উদযাপন করে আসছে। এইসময়ে বিশ্বজুড়ে সরকারি খাতে গৃহীত সর্বোত্তম উদ্ভাবনী উদ্যোগসমূহকে পুরস্কারের মাধ্যমে স্বীকৃতি দেওয়া হয়।
এই মর্যাদাপূর্ণ পুরস্কার প্রাপ্তির নেপথ্যে কিছু কাজের বিবরণ তুলে ধরতে চাই- গত নভেম্বর মাসে আইসিটি বিভাগের এটুআই-এর প্রকল্প পরিচালক ড. মোঃ আব্দুল মান্নান স্যার আমাকে জানান যে, ই-মিউটেশন নিয়ে 'United Nations Public Service Award-2020' এর জন্য ডকুমেন্টস তৈরির পরামর্শ দেন। আমি জানাই এতো কাগজপত্র তৈরিতে অনেক সময় ও ব্যয় হবে, তখন স্যার নির্ভয় দেন এবং বলেন এটুআই-এর সকল সদস্য এ বিষয়ে তোমাকে সকল ধরণের সহায়তা করবে। যে কথা সেই কাজ আমি পরের দিন ১১/১১/২০১৯ তারিখ সোমবার সকালে আমি এটুআই-এর অফিসে গিয়ে সকলের সঙ্গে পরামর্শ করি এবং কর্মপরিকল্পনা করে সকলকএ সহায়তা প্রদানের জন্য অনুরোধ করি। পরবর্তীতে ভূমি মন্ত্রণালয়ে এসে সচিব স্যারকে বিষয়টি অবহিত করি। মাননীয় মন্ত্রী মহোদয়ের নির্দেশনায় এবং সচিব স্যারের অনুপ্রেরণায় এই Award এর জন্য লেখার কাজ শুরু করি। এই এওয়ার্ড প্রাপ্তিতে আমাকে অনুপ্রেরণা প্রদানের জন্য ভূমি মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী এবং সচিব মহোদয়কে বিশেষভাবে কৃতজ্ঞতা জানাই।

মান্নান স্যার যেহেতু ই-মিউটেশনের উপর জনপ্রশাসন পদক পেয়েছেন এবং তার নেতৃত্বে ই-মিউটেশন কার্যক্রম বাস্তবায়ন করেছি সেজন্য তাঁর কাছ থেকে অনেক দিক নির্দেশনা নিই এবং বর্তমানে করিমগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার তৎকালীন এটুআই এর কনসালটেন্ট তাসলিমা প্রচুর সহুযোগিতা করেন। এছাড়াও এই কাজে দিন-রাত এক করে যারা আমাদেরকে সবচেয়ে বেশী শ্রম দিয়েছে তারা হলো এটুআই-এর ই-মিউটেশন টিমের ফারজানা মাইসা, মাসরুর মোহাম্মদ শান্ত, আয়েশা মোস্তফা, মোহাম্মদ সাইফুল্লাহ, কাজি মুহাইমিনুল ইসলাম, রিয়াজুল, মোঃ হুমায়ুন কবির ও এটুআই এর RM Team এর সদস্য মেঘলা মাহমুদ, শাখাওয়াত হোসেন এবং কমিউনিকেশন টিমের তানজিনা। যার গবেষণালব্ধ Documents এই কার্যক্রমকে অনেক বেশি সমৃদ্ধ করেছে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক ড. এস এ চৌধুরী। ভূমি রেকর্ড ও জরিপ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক জনাব মোঃ তসলীমুল ইসলাম স্যার এবং Innovation for Poverty Action-এর Country Director জনাব মোহাম্মদ আশরাফুল হক তাদের কৃতজ্ঞতাও অনস্বীকার্য। বিভিন্ন পত্র পত্রিকার প্রতিবেদন আমাদের এই কার্যক্রমকেও সমৃদ্ধ করেছে। এছাড়াও ই-মিউটেশন বাস্তবায়নে পৃষ্টপোষকতা দেওয়ায় আইসিটি বিভাগের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী ও সিনিয়র সচিব আইসিটি বিভাগক মহোদয়কেও আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জানাই।
জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিপি-৪ শাখার সিনিয়র সহকারী সচিব জনাব শাহরিয়ার আল-কবীর সিদ্দিকী আমার এই দাখিলকৃত কাগজপত্রের মানোন্নয়নে সহযোগিতা কাগজপত্রগুলিকে আরো বেশি সমৃদ্ধ করতে আমাকে সহায়তা করেছেন। সেজন্য তাঁকে আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জানাই। সিপিটি অনুবিভাগের অন্যান্য সদস্যদেরও কৃতজ্ঞতা জানাই। বিশেষ করে কৃতজ্ঞতা জানাই জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী এবং সচিব মহোদয়কে যাঁর নির্দেশনায় আমার এই প্রমানপত্র যথাসময়ে যথাযথভাবে জাতিসঙ্গে পৌঁছানোর ব্যবস্থা গ্রহণ করেছেন।
সকলের আন্তরিক সহায়তা এবং আমাদের অক্লান্ত পরিশ্রম ও প্রচেষ্টা এই পুরস্কার অর্জনে সহায়তা করেছে। ই-মিউটেশন কার্যক্রম বাস্তবায়নে ভূমি সংস্কার বোর্ড মাঠ প্রশাসনের দক্ষতা অর্জন এবং সমন্বয়ে সহায়তা করে আসছে। এজন্য ভূমি সংস্কার বোর্ডকেও কৃতজ্ঞতা জানাই। মাঠ প্রশাসনের বিভাগীয় কমিশনার মহোদয়গন, জেলা প্রশাসকগণ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব)গণ, উপজেলা নির্বাহী অফিসারগনকেও কৃতজ্ঞতা জানাই। কমিশনার (ভূমি), কানুনগো, সার্ভেয়ার এবং ইউনিয়ন ভূমি সহকারী ও উপসহকারী কর্মকর্তাগণ ই-মিউটেশন কার্যক্রম সরাসরি বাস্তবায়ন করে থাকে এজন্য তাদেরকেও আন্তরিক কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানাই। তাদের সফল বাস্তবায়ন বাংলাদেশকে এই অর্জনে সহায়তা করেছে।
বাংলাদেশের কোনো মন্ত্রণালয় এই প্রথম ডিজিটাল সার্ভিসের জন্য একটি আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পেলো। আমার বিশ্বাস ভূমি মন্ত্রণালয় সকলকে সঙ্গে নিয়ে ভূমিসেবাসমূহ দ্রুততম সময়ে ডিজিটাল সার্ভিসে রূপান্তরে অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে এবং সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নে সফলকাম হবে। আমি আবারও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, ভূমি মন্ত্রণালয়, ভূমি সংস্কার বোর্ড, এটুআই, আইসিটি বিভাগ, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়সহ সকলকে আন্তরিক কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানাই।
লেখকঃ 
Md Doulutuzzaman Khan স্যার

No comments