Breaking News

ভয়াল ২১শে আগষ্ট এর স্মৃতিচারণ :- আবুল কালাম আজাদ


ভয়াল ২১শে আগষ্ট । 

সেদিন মোহাম্মদপুর বাসা থেকে দুপুর ১টায় আওয়ামী লীগ কেণ্দ্রীয় কার্যালয় অভিমূখে রওয়ানা করলাম । যথাসময়ে মিটিংস্থলে পৌছলাম । আওয়ামী লীগ কেণ্দ্রীয় কার্যালয়ের প্রায় সকল কর্মসূচীতে অংশগ্রহনকালে মহানগর আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর অন্যতম সদস্য রফিক চাচা ( আঁদা রফিক ) আদা দিয়ে বিশেষায়িতভাবে তাঁর নিজহাতে তৈরি জিঞ্জার প্রয়াত হানিফ ভাই, মায়া ভাই সহ অন্যান্যদের দিতেন । এককৌটো জিঞ্জার আমাকেও দিতেন, আমিও পরম শ্রদ্ধাভরে রফিক চাচার জণ্য ২০ খিলি পান বানিয়ে দিতাম । 

প্রিয়নেত্রী বক্তব্য রাখছেন, মঞ্চ হিসেবে ব্যবহৃত ট্রাকটির ডানপাশ ঘেষে দাড়িয়ে বক্তব্য শুনছি । বিকেল অনুমান ৫টা ১৫ মিঃ সময়ে রফিক চাচার দিকে দৃষ্টি পড়তেই তিঁনি আঙ্গুল ও মুখের ঈশারায় পানখিলি চাইলেন । আমি রমনা ভবনের কোণে পান দোকানে যেয়ে পাঁচ খিলি পান দেয়ার জণ্য দোকানীকে বললাম, এরই ফাকে মুখে সিগারেট গুজে দু-টাণ দিতেই ভয়াল শব্দ, গগনবিদারী চিৎকার, ধোয়ায় আচ্ছন্ন, দ্বিক-বিদিক ছুটোছুটি । ধুঢ়ুম-ধুড়ুম শব্দ । পটাশ-পটাশ গুলির শব্দ কানে অনুভূত হলো । প্রিয় নেত্রীকে নেতা-কর্মীর মানব কর্ডনে বেষ্টিত অবস্থায় ক্ষানিক বসে পরে জীপ গাড়ীতে নেয়া হলো । 

নেত্রীর গাড়ী লক্ষ্য করেও গুলি ছুড়ছে ঘাতকচক্র এবং টিয়ারগ্যাস সেল এর ঝাঁঝালো ধোয়ায় চোখমেলা দায় । রক্তাক্ত রাজপথ, বাতাসে পোড়া গন্ধ । এগিয়ে যেতেই বামকাঁধে ও ডান পায়ে পুলিশের আঘাতে মাটিতে পড়ে গেলাম,পায়ের অসহ্য যন্ত্রনা নিয়ে কোনমতে উঠে রমনা ভবনের পার্শ্বের পেট্রোলপাম্পের গলিতে কুমিল্লা (উঃ) জেলা আওয়ামী লীগ সাধারন সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম সরকারের মার্কেটে আশ্রয় নেই । আইভী আন্টি, রফিক চাচা সহ ২৪জন নেতাকর্মী আজ আমাদের মাঝে নেই । তিন শতাধিক নেতাকর্মী পঙ্গুত্বে ধুকছে ।

ভয়াবহ সেই স্মৃতি এখনো তাড়িয়ে বেড়াচ্ছে আমায় .... আজো বেঁচে আছি ।

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে স্ব-পরিবারে হত্যার পর বাংলাদেশের ইতিহাসের আরেকটি কলঙ্কজনক ও রক্তাক্ত দিন ২১শে আগষ্ট । ৩০ বছর পর এই আগস্ট মাসেই মুক্তিযুদ্ধে নের্তৃত্বদানকারী সংগঠন আওয়ামী লীগকে নেতৃত্বশূণ্য করার হীণ মানসিকতায় ৭১ এর পরাজিত শক্তি ও ৭৫ এর ১৫ই আগষ্টের খুনীদের পুরুস্কৃতকারীচক্র বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশ্যেই গ্রেনেড হামলা করে ।
২১শে আগষ্টে গ্রেনেড হামলায় সকল শহীদ'দের আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি, পঙ্গুত্ববরনকারী রাজপথের সহযোদ্ধাদের প্রতি সহমর্মিতা জানাচ্ছি এবং ঘৃণ্যতম-বর্বরোচিত


 

No comments