Breaking News

এবার ওএসডি হলেন মাহবুব কবীর

রেলপথ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মাহবুব কবীর মিলনকে আবারও বদলি করে দেয়া হলো। তাকে এখন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওএসডি) হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের জারি করা এক প্রজ্ঞাপনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
মাহবুব কবীর মিলন

জানা গেছে, বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান পদে ছিলেন মো. মাহবুব কবির মিলন। সেখানে থাকতে হোটেল-রেস্তোরাঁ থেকে শুরু করে সর্বত্র ভেজাল খাদ্য উৎপাদন ও বিপণন বন্ধে জোরালো ভূমিকা রেখে বেশ প্রশংসা কুড়িয়েছিলেন তিনি।

এরপর গত ২৫ মার্চ জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে জারিকৃত এক প্রজ্ঞাপনে তাকে ওই পদ থেকে সরিয়ে রেলপথ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়।

সম্প্রতি 'টিকিট যার, ভ্রমণ তার' নামে রেলওয়েতে নতুন একটি নিয়ম চালু করতে যাচ্ছিলেন মাহবুব কবীর মিলন। এ বছরের অক্টোবরের শেষ নাগাদ জাতীয় পরিচয়পত্র দিয়ে টিকিট কাটার নতুন এই নিয়ম চালুর কথা বলেছিলেন তিনি। এটি চালু করতে পারলে টিকিট কালোবাজারি বন্ধ এবং ভ্রমণের সময় যাত্রীর পরিচয় নিশ্চিত হতো।

এক্ষেত্রে প্রথমে একজন যাত্রীকে রেলওয়ের ওয়েবসাইটে নিজের ন্যাশনাল আইডি কার্ড অর্থাৎ জাতীয় পরিচয়পত্র দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। তখন রেজিস্ট্রেশন করার সঙ্গে সঙ্গে তার ছবি এবং পরিচিতি (যেটা জাতীয় পরিচয়পত্র সার্ভারে আছে) রেলের সার্ভারে চলে আসবে। একজন যাত্রী সর্বোচ্চ চারটি টিকিট কিনতে পারবেন।

যাত্রাকালে চেকার তার কাছে থাকা স্মার্টফোন বা ট্যাবের মাধ্যমে রেলের সার্ভারে থাকা যাত্রীর পরিচয়ের সঙ্গে টিকিটে থাকা পরিচয় মিলিয়ে দেখবেন। তার মানে যার নামে টিকিট শুধু তাকেই ভ্রমণ করতে হবে। তার জায়গায় অন্য কেউ ভ্রমণ করতে পারবে না। যাত্রাকালে 'অন বোর্ডে' নিজের পরিচয় নিশ্চিত করতে হবে। এক্ষেত্রে ওই যাত্রীর স্মার্টফোন সঙ্গে থাকার প্রয়োজন নেই। এমনকি জাতীয় পরিচয়পত্রও বহন করতে হবে না।

আর যাদের ন্যাশনাল আইডি কার্ড অর্থাৎ জাতীয় পরিচয়পত্র নেই, তাদের ক্ষেত্রে রেজিস্টার্ড আইডি নম্বর থাকে। সেটি দিয়েই তারা টিকিট কাটতে পারবেন। আর যাদের রেজিস্টার্ড আইডি নম্বরও নেই, অর্থাৎ ১৬ বছরের কম বয়সীদের ক্ষেত্রে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি। তবে তাদের ক্ষেত্রে জন্মসনদ দিয়ে টিকিট কাটার ব্যবস্থা করার পরিকল্পনা করছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।

সেই উপলক্ষে চলতি আগস্ট মাসেই রেলওয়ে মন্ত্রণালয় নির্বাচন কমিশনের আওতায় জাতীয় পরিচয়পত্র প্রকল্পের সঙ্গে রেলওয়ে একটি সমঝোতা স্মারক সই করার কথা ছিল। কিন্তু তার আগেই তাকে ওএসডি করা হলো।

No comments