Breaking News

প্রসঙ্গ: এমপিও নীতিমালা ও জনবল কাঠামো-২০২১ এবং উৎসব বোনাস

প্রসঙ্গ: এমপিও নীতিমালা ও জনবল কাঠামো-২০২১ এবং উৎসব বোনাস


তিনটি প্রশ্নের সঠিক উত্তর দিন; শতভাগ বোনাস বুঝে নিন।

এ টি এম আশরাফুল ইসলাম সরকার রাংগা

গত ২৯ মার্চ ২০২১ খ্রী: তারিখ সন্ধ্যায় বেসরকারি স্কুল ও কলেজের এমপিও নীতিমালা ও জনবল কাঠামো-২০২১ প্রকাশ করা হয়েছে। মোট ৪৪ পাতার এ নীতিমালায় উল্লেখযোগ্য দিকগুলোর মধ্যে রয়েছে- সিনিয়র শিক্ষকে পদোন্নতি,  সহকারি গ্রন্থাগারিক ও ক্যটালগারদের শিক্ষক মর্যাদা। সেখানে ইমোশনাল হয়ে শতভাগ বোনাস নিয়ে নেতৃস্থানীয় কিছু শিক্ষকের ফেসবুক স্ট্যাটাস এবং দু’ একটি পত্রিকার প্রকাশিত খবরা-খবর আমাদের সাধারণ শিক্ষকদের মাঝে ধোঁয়াশার সৃষ্টি সৃষ্টি করেছে। শিক্ষক সমিতির কেন্দ্রীয় সভাপতি শ্রদ্ধেয় মো. নজরুল ইসলাম রনি স্যার নিজ ফেসবুকে বাংলা ট্রিবিউন পত্রিকার বরাত দিয়ে শতভাগ বোনাসকে আমলে নিয়ে সরকারের এই সিদ্ধান্তকে’ স্বাগত জানিয়েছেন। অপরদিকে শাহাজাহান স্যার তার ফেসবুকে দৃষ্টিনন্দন এক পোস্টারে ‘পূর্ণাঙ্গ উৎসব ভাতা  ও বদলি বিষয়ে নীতিমালায় অন্তর্ভুক্ত  করায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, শিক্ষা মন্ত্রী ও  শিক্ষা উপমন্ত্রীকে প্রাণঢালা অভিনন্দন জানিয়েছেন। এসব স্ট্যাটাসে অভিনন্দন, কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ সম্বলিত মন্তব্য এসেছে প্রচুর। এখানেই থেমে নেই শতভাগ উৎসব ভাতার প্রচার-প্রচারণা। শিক্ষাবার্তা, জাগো নিউজ টুয়েন্টি ফোর ডট কম, শিক্ষা কথা, বাংলা ট্রিবিউন, মুক্তপ্রভাত, নিউ আহসানুল হক ডট কম সহ বেশ কিছু পত্রিকায় শতভাগ বোনাসের খবর ফলাও করে ছাপা হয়েছে।

আবার কেউ কেউ শতভাগএই বোনাসের বিষয়টি উড়িয়ে দিয়েছেন। অনেকেই শিক্ষা নীতিমালায় (২০২১) শতভাগ বোনাসের প্রজ্ঞাপন জারী করার জন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানিয়েছেন।

বোঝা যাচ্ছে বিষয়টি বিতর্কিত। অর্থ্যাৎ কেউ বলেছেন এমপিও নীতিমালা ২০২১-এ শতভাগ বোনাসের ঘোষণা আছে। আবার কেউ বলছেন নেই।

আমি কিন্তু এসবের গভীরে যেতে চাচ্ছিনা। একটা সোজা-সাপ্টা হিসেব মেলোনোর চেষ্টা করছি। এজন্য আপনাদের কাছে রাখা কয়টি প্রশ্নের সঠিকি উত্তরের প্রয়োজন হবে মাত্র। তার আগে নীতিমালার ১১ (৭) ধারায়  যা বলা আছে, তা জেনে নেওয়া দরকার। এখানে উল্লেখ আছে-

‘বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারীদের মূল বেতন/বোনাসের নির্ধারিত অংশ/উৎসব ভাতার নির্ধারিত অংশ সরকারের ২০১৫ সালে জাতীয় বেতন স্কেল/সরকার নির্ধারিত সর্বশেষ জাতীয় বেতন স্কেলের সঙ্গে অথবা সরকারের নির্দেশনার সঙ্গে মিল রেখে করতে হবে।’

এবারে প্রশ্নগুলো রাখছি-

ক. ২০১৫ সালে জাতীয় বেতন স্কেল অনুযায়ী পরবর্তীতে আপনি কি শতভাগ বোনাস পেয়েছেন?

খ. সরকার নির্ধারিত সর্বশেষ জাতীয় বেতন স্কেল অনুযায়ী পরবর্তীতে আপনি কি শতভাগ বোনাস পেয়েছেন?

গ.  শতভাগ বোনাস পাওয়ার জন্য আপনি সরকারের পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত কোন নির্দেশনা বা প্রজ্ঞাপন কি পেয়েছেন?

উপরের অন্তত: একটি প্রশ্নের উত্তর যদি “হ্যাঁ” আসে, তাহলে আমি হলফ করে বলতে পারি আমরা 

শতভাগ বোনাসের দাবীদার। আর যদি “না” হয়, তাহলে এ প্রশ্নের উত্তর খুঁজতেই থাকুন; যতক্ষণ না 

উপরের তিনটি প্রশ্নের অন্তত: একটির সমাধান না আসে। এর চেয়ে পরিস্কার করে বুঝিয়ে দেয়ার ক্ষমতা 

আমার আর নেই।


কাজেই, বিরুপ মন্তব্য করে করবেন না। আগে পড়ুন, বুঝুন, প্রয়োজনে শিক্ষাবিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন। তারপর মন্তব্য করুন। পরামর্শ দিন এবং তার বিপরীতে প্রমাণপত্র দেখানোর চেষ্টা করুন। আমরা যারা সাধারণ শিক্ষক আছি, তারা আপনাদের নিকট থেকে সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য সমাধান এবং গঠনমূলক পরামর্শ আশা করছি। কিছু কিছু বিষয়ে আমি নিজেও সন্দিহান হয়ে পড়েছি। আমাদের মধ্যে এমন দ্বিধা-দ্বন্দ্ব থাকলে কর্তৃপক্ষ আমাদের খেলা দেখবে; আমাদের জ্ঞানের গভীরতা দেখে হাসবে। আমরা প্রশ্নবিদ্ধ হতে পারি। 

আশা করছি, বিষয়টিকে নেতিবাচক হিসেবে না নিয়ে চুল-চেড়া বিশ্লেষণের দিকে এগিয়ে যাবেন। ধন্যবাদ।

সহকারী শিক্ষক, জাহাঙ্গীরাবাদ দ্বি মুখী উচ্চ বিদ্যালয়

পীরগঞ্জ, রংপুর।

ই-মেইল: rangasarker100@gmail.com


No comments