Breaking News

ছেলেকে খুঁজে পেতে ধর্মীয় বক্তা আদনানের মায়ের আকুতি


আলোচিত ধর্মীয় বক্তা আবু ত্ব-হা মুহাম্মদ আদনান নিখোঁজ হওয়ার বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এখন ভাইরাল। তার ফ্যান-ফলোয়াররা হ্যাশট্যাগ দিয়ে তার খোঁজ পাওয়ার জন্য প্রচারণা চালাচ্ছেন। অন্যদিকে আদনানের মা হাজেরা বেগম ছেলের সন্ধান পেতে প্রধানমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ট সবার কাছে আকুতি জানিয়েছেন।


গত ১০ জুন তিনি রংপুর থেকে তিন সঙ্গীসহ ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেয়ার পর নিখোঁজ হন বলে তার পরিবারের অভিযোগ। এ ঘটনায় রংপুর সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে।

আদনানের মা হাজেরা বেগম ঢাকাটাইমসকে বলেন, গত বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টার দিকে আমার ছেলে আদনান এবং তার সফর সঙ্গী গাড়িচালক ওমর উদ্দিন, ফিরোজ আলম এবং আবদুল মুহিত ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেয়। সন্ধ্যা ৬টার দিকেও আদনানের সাথে আমার কথা হয়। সে আমাকে বলেছিল, মা আমি ভালো আছি, তুমি কোনো চিন্তা করো না। পরে রাত সাড়ে ৩টার দিকে স্ত্রী হাবিবা নুরের সাথে আদনানের কথা হয়। এরপর থেকেই সে বলছিল, নেটওয়ার্কে সমস্যার কারণে কথা শোনা যাচ্ছে না। পরে আমি গত ১১ জুন শুক্রবার রংপুর সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছি। আমার ছেলেসহ সবার ফোন বন্ধ।

হাজেরা বেগম ঢাকাটাইমসকে বলেন, আমি প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে বলতে চাই, তিনি একজন মমতাময়ী মা। তিনি এক ছেলে এক মেয়ের জননী। আমিও এক ছেলে এক মেয়ের মা। তিনি যেভাবে পারেন আমার ছেলেকে খুঁজে বের করে দিন। তাকে কাছে পেলে আমি তার পায়ে ধরে বলতাম, আপনি আমার ছেলেকে খুঁজে বের করে দিন। আমার ছেলে নিখোঁজ হওয়ার পর থেকে নানা ধরনের মানুষ ফোন করে আমার খোঁজ খবর নিচ্ছেন, নানা ধরনের তথ্য চাচ্ছেন। আমি এক গ্লাস পানিও খেতে পারছি না। আপনারা যেভাবে পারেন আমার ছেলেকে খুঁজে দিন।


জিডির তথ্য ধরে অনুসন্ধানে দেখা গেছে, রংপুর মহানগরীর সেন্ট্রাল রোডের আহলে হাদিস মসজিদ-সংলগ্ন গলিতে আদনানের পৈতৃক বাসা। বিয়ের পর স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে শালবন এলাকার চেয়ারম্যানের গলিতে একটি ভাড়া বাসায় বসবাস করতেন। আদনানের স্ত্রীর নাম হাবিবা নূর। তিন বছরের একটি মেয়ে ও দেড় বছর বয়সী ছেলেসন্তান আছে তাদের।


আদনানের স্ত্রী সাংবাদকিদের বলেন, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ২টা ৩৭ মিনিটে তার (আদনান) সঙ্গে শেষ কথা হয়। উনি তখন গাবতলী ছিলেন। এরপর রাত ৩টা থেকে তার ফোন বন্ধ পাই, এখন পর্যন্ত নম্বর বন্ধই পাচ্ছি। তিনি আরো জানান, নিখোঁজ হওয়ার সময় তার সঙ্গে গাড়িচালকসহ আরো তিনজন সহকর্মী ছিলেন।


এ ব্যাপারে রংপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুর রশিদ ঢাকাটাইমসকে বলেন, গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত থেকে তিনি নিখোঁজ হয়েছেন। তার মা হাজেরা বেগম শুক্রবার রাতে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন। বিষয়টি তদন্ত করছেন রংপুর সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মজনু মিয়া। আমরা আমাদের মত চেষ্টা করছি।

এ ব্যাপারে র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন ঢাকাটাইমসকে বলেন, তার নিখোঁজ হওয়ার খবর আমি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শুনেছি। তার পরিবার থেকে কেউ আমাদের কাছে অভিযোগ নিয়ে আসেনি। তবুও আমরা বিষয়টি খতিয়ে দেখছি।


আবু ত্ব-হা মুহাম্মদ আদনান ধর্মীয় বক্তা হিসেবে পরিচিত। তিনি বিভিন্ন মসজিদে খুতবায় অংশ নিতেন। রংপুর কারমাইকেল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিনি দর্শনে মাস্টার্স পাশ করেন। তিনি অনলাইনে কোরআন শিক্ষা দিতেন। এক ভাই এক বোনের মধ্যে তিনি বড়। [খবর: ঢাকা টাইমস]

No comments