Breaking News

কিভাবে ডিজিটাল বিজনেস আইডেনটিফিকেশন নম্বর (DBID) রেজিস্ট্রেশন করবেন?


বাংলাদেশে ই-কমার্স খাতে ব্যবসা করতে গেলে ডিজিটাল বিজনেস আইডেনটিফিকেশন নম্বর (ডিবিআইডি) নিয়ে ব্যবসা করতে হবে। সে জন্য যৌথ মূলধন কোম্পানি ও ফার্মসমূহকে পরিদপ্তর থেকে একটি নিবন্ধন নিতে হবে। আমার সরকার ওয়েবসাইট mygov.com অথবা Digital Business Identification Number (DBID) এর মাধ্যমে আবেদন করা যাবে। আবেদনের ৩০ কার্যদিবসের মধ্যে ডিজিটাল বিজনেস আইডেনটিফিকেশন নম্বর (DBID) প্রদান করা হবে। এর জন্য যেসকল কাগজপত্রাদি জমা দিতে হবে তার লিস্ট নিচে দেওয়া হলো।

DBID এর জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্রাদি

  • ছবি
  • স্বাক্ষর
  • আবেদনকারীর জাতীয় পরিচয়পত্রের সত্যায়িত কপি
  • আয়কর নিবন্ধন নম্বর সত্যায়িত কপি (যদি থাকে)
  • কোম্পানি রেজিস্ট্রেশন নম্বরের সত্যায়িত কপি (যদি থাকে)
  • ট্রেড লাইসেন্সের সত্যায়িত কপি( যদি থাকে)
  • পরিচালকগণের জাতীয় পরিচয়পত্রের সত্যায়িত কপি
  • প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যানের জাতীয় পরিচয়পত্রের সত্যায়িত কপি
  • বাড়ির মালিকের জাতীয় পরিচয়পত্রের সত্যায়িত কপি
  • ভাড়া অফিসের ক্ষেত্রে বাড়ি ফ্ল্যাটের মালিকের সাথে সম্পাদিত চুক্তির দলিলের সত্যায়িত কপি
  • ভ্যাট নিবন্ধন নম্বর এর সত্যায়িত কপি (যদি থাকে)
  • স্থানীয় চেয়ারম্যান / ওয়ার্ড কমিশনার / গণ্যমান্য ব্যক্তির সুপারিশ

সেবার মূল্য এবং পরিশোধ পদ্ধতি

  • বিনামূল্য

সেবা প্রদানের সময়সীমা

  • ৩০ দিন

আবেদন ফরম পূরণের নিয়মাবলী

১। আবেদন ফরমের লাল তারকা চিহ্নিত ঘরগুলো অবশ্যই পূরণ করুন। অন্যান্য ঘরগুলো পূরণ ঐচ্ছিক।

২। আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হওয়ার পূর্বে প্রয়োজন হলে সংরক্ষণ করা যায় এবং পরবর্তীতে সেবা ব্যবস্থাপনা অপশন হতে ড্রাফট আবেদন পুনরায় শুরু করা যাবে।

৩। আবেদন দাখিলের পর প্রতিটি আবেদনের জন্য একটা স্বতন্ত্র ট্রাকিং নম্বর প্রদান করা হবে যেটা ব্যবহার করে সেবা ব্যবস্থাপনা অপশন হতে আবেদনের অগ্রগতি জানা যাবে।

আবেদন করতে নিচের mygov.com লিংকে ক্লিক করুন



No comments