Breaking News

ফুলকপি সমাচার!!


একজন শখের কবি একবার ফুলকপি নিয়ে একটা কবিতা ফেসবুকে লেখেন!! এরপর যা যা হয়েছিল সেটা ওনার বয়ানেই শুনুন.....

“মানুষের মাথায় নানান ইচ্ছে চাপে, আমার মাথায় চেপেছিলো ফুলকপি!! কোন দুঃখে আমি সেদিন ফুলকপি নিয়ে একটা ছড়া লিখেছিলাম,

                     "শীতের দিনে,

                      তোমার কাছে,

                      ফুল চাইনি প্রিয়;

                      সময় পেলে,

                      রান্না করে,

                      ভাজা ফুলকপি দিও!!"

ফেসবুকে এই ছড়া পোস্ট করার পর, আমার জীবন এবং যৌবন ''ভাজা ভাজা, তিলের খাজা'' হয়ে গেছে !!

বউ আমাকে বললো:- এই কবিতা কার উদ্দেশ্যে লিখেছো?

আমি সরল গলায় বললাম, "কার উদ্দেশ্যে মানে?"

এরপর একদমে অনেকগুলো প্রশ্ন করলো!! সবমিলিয়ে প্রায় শ-দেড়েক প্রশ্ন; সব কটা প্রশ্ন আমার মনে নেই; অল্প কয়েকটা মনে আছে যেমন:-

১. প্রথম লাইনে একটা শব্দটা আছে, "প্রিয়"!! কে তোমার প্রিয়?

২. কে তোমাকে ফুল দেয়? 

৩. কেন দেয়? 

৪. কীভাবে দেয়? 

৫. কোথায় দেয়? 

৬. দিনে কয় বার দেয়? 

৭. কি ফুল দেয়? 

৮. আর কি কি দেয়?

৯. কি কি দিতে বাকি রাখছে?

১০. তাজা ফুল না প্ল্যাস্টিকের ফুল ? 

১১. কার কাছে তুমি এই শীতে ফুলের বদলে ফুলকপি চাইছো? 

১২. এত কিছু থাকতে ফুলকপি চাইতে গেলে কেন? 

১৩. কাঁচাফুলকপি না চেয়ে রান্না করা ফুলকপি কেন চাইলে? 

১৪. অন্য কোনো মেয়ে কেন তোমার জন্য ফুলকপি রাঁধবে? 

১৫. ঘরের রান্না মুখে রোচে না? 

১৬. ফুলকপি মানে কি সবজি ফুলকপি না এর অন্য কোনো গোপন অর্থ আছে? 

১৭. সারাজীবন ফুলকপি খেয়েও শখ মেটেনি?

১৮. আর কত ফুলকপি চাও?

১৯. কবে তোমার পেট ভরবে?

২০. বুড়ো হচ্ছো আর ক্ষিধে বাড়ছে তোমার না?

২১. পেয়েছো কি তুমি?

২২. তোমাকে কি আমি খেতে দিই না?

২৩. রাস্তা ঘাটে ফুলকপি চেয়ে বেড়াও? 

২৪. আজ ফেসবুকে চাইছ , কাল কি থালা নিয়ে রাস্তায় বসবে? 

২৫. এরপর  কি পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দেবে? 

২৬. আমার কাছে চাইলে কি আর আমি ফুলকপি দিতাম না? 

  ২৭. আমার রান্না ভালো লাগেনা এতদিন পর বললে?

▪️

সর্বশেষ প্রশ্নটা বড়ই নির্মম:- 

২৭. তোমার এত হাউস কেন?

আমি হতভম্ব হয়ে কোনও প্রশ্নের উত্তর গুছিয়ে দিতে পারিনি ফলে আমার জীবন হয়ে গেছে ফুলকপিময় !!

▪️

সকালে রুটির সাথে ফুলকপি ভাজা, দুপুরে রান্না করা ফুলকপি, রাত্রে ফুলকপি দিয়ে মাছ!! মাঝে বেলায় বেলায় ফুলকপি দিয়ে ঝোল আর ফুলকপি তরকারি; একবার  ফুলকপির স্যুপ পর্যন্ত খেতে হয়েছে!! সেই এক সপ্তাহে আমি যে পরিমাণ ফুলকপি খেয়েছি, ছোটো খাটো চাষি তার গোটা জীবনে এতগুলি ফুলকপি দেখেননি!!

▪️

আজ সন্ধ্যায় বললাম, আদা দিয়ে একটু লাল চা করে দাও, একটু সর্দি লেগেছে!! ও পাথর মুখ করে চা বানাতে গেলো; আর আমি ভয়ে ভয়ে রইলাম!! চায়ে আদার বদলে ফুলকপি দিয়ে ফেলে কিনা কে জানে!! অশেষ কৃপায় খানিকবাদে ও আদা চা নিয়ে এলো; গলাটা একটু কোমল করে বলল, খালি পেটে চা খাবেনা। ফুলকপির বড়া ভেজেছি। ওটা খেয়ে তারপর চা খাও !!

▪️

পুনশ্চ:- আরেকটা প্রশ্ন ছিলো এখন মনে পড়েছে!! "কি আছে ফুলকপিতে, যা আমার নেই?

(বলেই কান্না)

পুনশ্চ ২ :- আরেকটা প্রশ্নও ছিল; এক্ষুনি মনে পড়লো:- "সত্যি করে বলো তো, আমাকে না জানিয়ে তুমি এ পর্যন্ত কতগুলি ফুলকপি খেয়েছো? লুকিয়ে লুকিয়ে!!”

🔹

কতবার যে পড়েছি আর হেসেছি মনে নেই! 

আমাদের প্রিয়তমা স্ত্রীরা অনেক সময়ই আবেগী হয়ে ওঠেন, এই গল্পে হয়তো কিছু বাড়াবাড়ি আছে, কিন্তু বাস্তবতায় অনেক সময় অনেক কিছু মিলেও যায়!

এই গল্প বউকে আমি শুনিয়েছি অনেক আদর করে ডেকে নিয়ে! গল্পের শেষে সে আমাকে বলল-

এই গল্প শুনিয়ে তুমি কি বুঝাতে চাও?

এত গল্প থাকতে এই গল্প কেনো শুনাতে হলো? 

আমাকেও কি এমন ভাবছ নাকি?

এত বিষয় থাকতে ফুলকপি নিয়ে উনাকে লিখতে হলো কেনো?

সেই লোক আদৌ অন্য কিছু মিন করেছিলো কিনা কে জানে?

আর বুঝাতে হবেনা, আমাকে শুনানোর মানে বুঝে গেছি.... অভিমানে প্রস্থান! 

(কি দুঃখে যে গল্প শুনালাম, বহু আগেও একবার পোস্ট করেছিলাম, আজ আবার কোনো এক কারনে পোস্টটা করলাম। একটা প্রবাদ আছেনা..ন্যাড়া বেল তলায় কয়বার যায়!)

©মুল লেখক: মুহতারাম আসিফ এন্তাজ রবি।

কোন মন্তব্য নেই